হবিগঞ্জ ০৭:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo সৎ প্রশাসকদের রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতা কোথায়? Logo চুনারুঘাটে ৩৯ বছরের বর্ণাঢ্য শিক্ষকতা পেশার অরবিন্দ দত্তের সমাপ্তি Logo ব্যারিস্টার সুমন এমপিকে সংবর্ধনা দিল চুনারুঘাট ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি Logo চুনারুঘাটে ১৭ কেজি গাঁজা সহ কারবারি গ্রেপ্তার Logo ৪র্থ বারের মতো জেলার শ্রেষ্ঠ হলেন চুনারুঘাট থানার এসআই লিটন রায় Logo ব্যারিস্টার সুমনকে হত্যার পরিকল্পনাকারী সোহাগ গ্রেফতার Logo ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় হত্যা মামলার আসামি জালাল গ্রেপ্তার Logo ব্যারিস্টার সুমনকে হত্যার পরিকল্পনার ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন Logo চুনারুঘাটে বঙ্গবন্ধু পরিষদের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হলেন তৌফিক মিয়া তালুকদার Logo ব্যারিস্টার সুমনের হত্যার পরিকল্পনারকারীদের গ্রেফতারে দাবীতে চুনারুঘাটে মাথায় কাফনের কাপড় বেঁধে প্রতিবাদ 

এবার ভালোবাসার টানে বানিয়াচং এসে যুবককে বিয়ে করলেন মালেশিয়ার মেয়ে ফাতিম

হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার যুবক আবদুর রকিব খানকে ভালোবেসে বাংলাদেশে ছুটে এসেছেন মালয়েশিয়ার তরুণী ফাতিম। পরে সম্প্রতি দুই পরিবারের সম্মতিতে বিয়ে করেন তাঁরা। বর্তমানে তাঁরা হবিগঞ্জ শহরে অবস্থান করছেন।

চার বছর আগে উচ্চশিক্ষার জন্য মালয়েশিয়ায় যান আবদুর রকিব খান। এরপর কুয়ালালামপুরের মেয়ে ফাতিমের সঙ্গে তাঁর পরিচয় ও প্রেম হয়। সম্প্রতি রকিব দেশে আসেন। এ সময় ফাতিম বাংলাদেশে আসার আগ্রহ প্রকাশ করেন এবং রকিবকে বিয়ের প্রস্তাব দেন।

ঈদুল ফিতরের তিন দিন আগে বাংলাদেশে আসেন ফাতিম। এরপর দুই পরিবারের অভিভাবকদের সম্মতিতে তাঁদের বিয়ে হয়। আবদুর রকিব খান বলেন, পড়াশোনা শেষ করতে কিছুদিন পর তিনি আবার মালয়েশিয়ায় যাবেন।

ফাতিম হবিগঞ্জ শহরে তাঁর পরিবারের সঙ্গে থাকবেন। মালয়েশিয়ায় পড়াশোনা শেষ হলে বাংলাদেশেই স্থায়ী হবেন তাঁরা। ফাতিমের পরিবার এ বিয়েতে সম্মতি দেওয়ার পর রকিবের সঙ্গে কথা বলেন ফাতিম। এরপর ঈদের তিন আগে বাংলাদেশে আসেন। তাঁরা হবিগঞ্জ আদালতে অ্যাফিডেভিটের মাধ্যমে বিয়ে করেন।

ফাতিম বলেন, তাঁর মা-বাবাসহ পরিবারের সবাই রকিবের পরিবারের আন্তরিকতায় মুগ্ধ। মালয়েশিয়া থেকে তাঁরা সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন।

বাংলাদেশে এসে বেশ ভালো লাগছে জানিয়ে এ মালয়েশিয়ান তরুণী বলেন, এ দেশের মানুষ মিশুক প্রকৃতির। তাঁদের ভালোবাসা পেয়ে মুগ্ধ তিনি। বাংলাদেশি খাবারও বেশ পছন্দ হয়েছে। মুরগির তরকারি ও দই বিশেষ ভালো লেগেছে।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

খন্দকার আলাউদ্দিন

হ্যালো, আমি খন্দকার আলাউদ্দিন, আপনাদের চারিপাশের সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করুন।
জনপ্রিয় সংবাদ

সৎ প্রশাসকদের রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতা কোথায়?

এবার ভালোবাসার টানে বানিয়াচং এসে যুবককে বিয়ে করলেন মালেশিয়ার মেয়ে ফাতিম

আপডেট সময় ০১:১১:১৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৯ এপ্রিল ২০২৩

হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার যুবক আবদুর রকিব খানকে ভালোবেসে বাংলাদেশে ছুটে এসেছেন মালয়েশিয়ার তরুণী ফাতিম। পরে সম্প্রতি দুই পরিবারের সম্মতিতে বিয়ে করেন তাঁরা। বর্তমানে তাঁরা হবিগঞ্জ শহরে অবস্থান করছেন।

চার বছর আগে উচ্চশিক্ষার জন্য মালয়েশিয়ায় যান আবদুর রকিব খান। এরপর কুয়ালালামপুরের মেয়ে ফাতিমের সঙ্গে তাঁর পরিচয় ও প্রেম হয়। সম্প্রতি রকিব দেশে আসেন। এ সময় ফাতিম বাংলাদেশে আসার আগ্রহ প্রকাশ করেন এবং রকিবকে বিয়ের প্রস্তাব দেন।

ঈদুল ফিতরের তিন দিন আগে বাংলাদেশে আসেন ফাতিম। এরপর দুই পরিবারের অভিভাবকদের সম্মতিতে তাঁদের বিয়ে হয়। আবদুর রকিব খান বলেন, পড়াশোনা শেষ করতে কিছুদিন পর তিনি আবার মালয়েশিয়ায় যাবেন।

ফাতিম হবিগঞ্জ শহরে তাঁর পরিবারের সঙ্গে থাকবেন। মালয়েশিয়ায় পড়াশোনা শেষ হলে বাংলাদেশেই স্থায়ী হবেন তাঁরা। ফাতিমের পরিবার এ বিয়েতে সম্মতি দেওয়ার পর রকিবের সঙ্গে কথা বলেন ফাতিম। এরপর ঈদের তিন আগে বাংলাদেশে আসেন। তাঁরা হবিগঞ্জ আদালতে অ্যাফিডেভিটের মাধ্যমে বিয়ে করেন।

ফাতিম বলেন, তাঁর মা-বাবাসহ পরিবারের সবাই রকিবের পরিবারের আন্তরিকতায় মুগ্ধ। মালয়েশিয়া থেকে তাঁরা সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন।

বাংলাদেশে এসে বেশ ভালো লাগছে জানিয়ে এ মালয়েশিয়ান তরুণী বলেন, এ দেশের মানুষ মিশুক প্রকৃতির। তাঁদের ভালোবাসা পেয়ে মুগ্ধ তিনি। বাংলাদেশি খাবারও বেশ পছন্দ হয়েছে। মুরগির তরকারি ও দই বিশেষ ভালো লেগেছে।