হবিগঞ্জ ০২:৩৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo আমার স্ত্রী সন্তানদের কোনো সম্পত্তির মালিক হতে দিব না, ব্যারিস্টার সুমন Logo আইনশৃঙ্খলায় অবদান রাক্ষায় জেলার শ্রেষ্ঠ হলেন চুনারুঘাট থানার ওসি হিল্লোল রায় Logo চুনারুঘাটে এফ.এন ফাউন্ডেশন ইউকে’র চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিনের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল Logo ফ্রেন্ডস ফাউন্ডেশন ও এসএসসি’৯১ ব্যাচ সিলেট বিভাগের মানবিক কার্যক্রম সম্পন্ন Logo চুনারুঘাটে যৌতুকের দাবীতে গর্ভবতী গৃহবধুকে ৫ দিন যাবৎ অমানুষিক নির্যাতন : ৯৯৯ কল পেয়ে উদ্ধার করল পুলিশ Logo হবিগঞ্জে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির স্বল্প মূল্যে চাল বিক্রয় শুরু : তদারকিতে খাদ্য বিভাগ Logo মাধবপুরে বাংলাদেশ প্রাঃ বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক সমিতি ও বাংলাদেশ সরকারি প্রাঃ বিদ্যাঃ সমিতির যৌথ ইফতার মাহফিল Logo চুনারুঘাট সাংবাদিক ফোরামের দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত Logo চুনারুঘাটে চেয়ারম্যান প্রার্থী আশরাফ ছিদ্দিকীর উদ্যোগে দরিদ্রদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ Logo বঙ্গবন্ধু পরিষদ রংপুর জেলার মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস পালন

কুলাউড়ায় আরডিআরএসের শীতবস্ত্র পেয়েছে ৭ শ’ ৯৫ পরিবার

শীতবস্ত্র ও শীতকালীন অন্যান্য সহায়তা প্যাকেজ পেয়েছে কুলাউড়ার হতদরিদ্র ৭ শ’ ৯৫ পরিবার। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা আরডিআরএস বাংলাদেশ ও মুসলিম এইড ইউকে’র সহায়তায় বৃহস্পতিবার উপজেলার শীতার্ত ও হতদরিদ্র মানুষদের এ কর্মসুচির আওতায় আনা হয়। সকালে উপজেলার জয়চন্ডী ইউনিয়ন প্রাঙনে শুরু হওয়া দিনব্যাপী এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহি অফিসার মাহমুদুর রহমান খোন্দকার। উদ্বোধনী আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আরডিআরএস বাংলাদেশের ডিরেক্টর-প্রোগ্রামস মুহম্মদ আব্দুস সামাদ।

উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের হাতে গরম কাপড়, কম্বল, সোয়েটার, মোজা, কানটুপি, ভ্যাসলিনসহ শীতকালীন এসকল উপহার প্যাকেজ তুলে দেওয়া হয়। শীতপ্রধান জেলা মৌলভীবাজারের হাওর-টিলা-চা-বাগান বেষ্টিত জনপদ কুলাউড়ার বিভিন্ন ইউনিয়নের হতদরিদ্র মানুষের মাঝে বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী শীতকালীন এসকল সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।
এসময় জয়চন্ডী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রব মাহবুবের সভাপতিত্বে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা, গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, ইউনিয়ন পরিষদের সচিব, ওয়ার্ড সদস্যগনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের স্হানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
পরে উপজেলার অন্যান্য ইউনিয়নের সুবিধাভোগীদের মাঝেও এই শীতকালীন সহায়তা প্যাকেজ বিতরণ করা হয়। স্থানীয় ব্রাহ্মণবাজারস্থ মুসলিম এইড কমিউনিটি হাসপাতালের সামনে আয়োজিত বিতরণ অনুষ্ঠানে ব্রাহ্মণবাজার ইউপি চেয়ারম্যান প্রভাষক মমদুদ হোসেন, মুসলিম এইড’র প্রোগ্রাম কোর্ডিনেটর শাহ ওয়ালিউল্লাহ, কমিউনিটি হাসপাতাল পরিচালক ডা. ফয়জুল্লাহ ফাহিম, আরডিআরএস বাংলাদেশ’র আর্লি লার্নারস প্রজেক্ট কোর্ডিনেটর মোহাম্মদ জিল্লুর রহমান, জেলা কর্মসুচি ব্যবস্থাপক কামাল মাহমুদসহ এলাকার স্থানীয় গন্যমান্য লোকজনও উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে ভুকশিমইল ইউনিয়ন পরিষদে আয়োজিত শীতকালীন এ প্যাকেজ বিতরণ কার্যক্রমে স্থানীয় চেয়ারম্যান মো. আজিজুর রহমানসহ পরিষদের সচিব, সদস্যগন ও স্হানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, কুলাউড়ায় বিগত বন্যায়ও যেমন বন্যার্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিল আরডিআরএস বাংলাদেশ এবারও শীতে তেমনি শীতকালীন এসব জরুরি সহায়তা নিয়ে উপজেলার দরিদ্র মানুষের সেবায় নিয়োজিত রয়েছে সংস্থাটি। মুসলিম এইড ইউকের আর্থিক সহায়তার উপজেলার ৭শ’ ৯৫ পরিবারের মাঝে প্রাথমিকভাবে এ সহায়তা পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। একই কর্মসুচির মাধ্যমে আরও প্রায় চার শ’ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে নগদ আর্থিক সহায়তার আওতায় আনবে আরডিআরএস বাংলাদেশ।
আরডিআরএস বাংলাদেশের ডিরেক্টর-প্রোগ্রামস মুহম্মদ আব্দুস সামাদ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে এ শীত সহায়তা বিতরণ কার্যক্রম পর্যবেক্ষন করেন। এসময় তিনি জানান, আরও ব্যাপকভাবে শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে আরডিআরএস বাংলাদেশের। সামনে যে শৈত্যপ্রবাহ আসার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর তার আগেই তারা প্রকৃত উপকারভোগিদের হাতে এসকল সহায়তা পৌঁছে দিতে চান। তিনি বলেন, এতে করে মানুষের কষ্ট যেমন কমবে তেমনি ব্যায়িত অর্থের প্রতিও সুবিচার হবে।
আরডিআরএস বাংলাদেশ ইতোমধ্যে উত্তর ও উত্তরপূর্ব বঙ্গের সাতটি জেলার ৩ হাজার পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে। উত্তরবঙ্গের আরও কিছু পরিবারকে এ শীতকালীন সহায়তা দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে আরডিআরএস বাংলাদেশ।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

খন্দকার আলাউদ্দিন

হ্যালো, আমি খন্দকার আলাউদ্দিন, আপনাদের চারিপাশের সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করুন।
জনপ্রিয় সংবাদ

আমার স্ত্রী সন্তানদের কোনো সম্পত্তির মালিক হতে দিব না, ব্যারিস্টার সুমন

কুলাউড়ায় আরডিআরএসের শীতবস্ত্র পেয়েছে ৭ শ’ ৯৫ পরিবার

আপডেট সময় ১২:৩৪:৫৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২৩

শীতবস্ত্র ও শীতকালীন অন্যান্য সহায়তা প্যাকেজ পেয়েছে কুলাউড়ার হতদরিদ্র ৭ শ’ ৯৫ পরিবার। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা আরডিআরএস বাংলাদেশ ও মুসলিম এইড ইউকে’র সহায়তায় বৃহস্পতিবার উপজেলার শীতার্ত ও হতদরিদ্র মানুষদের এ কর্মসুচির আওতায় আনা হয়। সকালে উপজেলার জয়চন্ডী ইউনিয়ন প্রাঙনে শুরু হওয়া দিনব্যাপী এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহি অফিসার মাহমুদুর রহমান খোন্দকার। উদ্বোধনী আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আরডিআরএস বাংলাদেশের ডিরেক্টর-প্রোগ্রামস মুহম্মদ আব্দুস সামাদ।

উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের হাতে গরম কাপড়, কম্বল, সোয়েটার, মোজা, কানটুপি, ভ্যাসলিনসহ শীতকালীন এসকল উপহার প্যাকেজ তুলে দেওয়া হয়। শীতপ্রধান জেলা মৌলভীবাজারের হাওর-টিলা-চা-বাগান বেষ্টিত জনপদ কুলাউড়ার বিভিন্ন ইউনিয়নের হতদরিদ্র মানুষের মাঝে বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী শীতকালীন এসকল সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।
এসময় জয়চন্ডী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রব মাহবুবের সভাপতিত্বে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা, গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, ইউনিয়ন পরিষদের সচিব, ওয়ার্ড সদস্যগনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের স্হানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
পরে উপজেলার অন্যান্য ইউনিয়নের সুবিধাভোগীদের মাঝেও এই শীতকালীন সহায়তা প্যাকেজ বিতরণ করা হয়। স্থানীয় ব্রাহ্মণবাজারস্থ মুসলিম এইড কমিউনিটি হাসপাতালের সামনে আয়োজিত বিতরণ অনুষ্ঠানে ব্রাহ্মণবাজার ইউপি চেয়ারম্যান প্রভাষক মমদুদ হোসেন, মুসলিম এইড’র প্রোগ্রাম কোর্ডিনেটর শাহ ওয়ালিউল্লাহ, কমিউনিটি হাসপাতাল পরিচালক ডা. ফয়জুল্লাহ ফাহিম, আরডিআরএস বাংলাদেশ’র আর্লি লার্নারস প্রজেক্ট কোর্ডিনেটর মোহাম্মদ জিল্লুর রহমান, জেলা কর্মসুচি ব্যবস্থাপক কামাল মাহমুদসহ এলাকার স্থানীয় গন্যমান্য লোকজনও উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে ভুকশিমইল ইউনিয়ন পরিষদে আয়োজিত শীতকালীন এ প্যাকেজ বিতরণ কার্যক্রমে স্থানীয় চেয়ারম্যান মো. আজিজুর রহমানসহ পরিষদের সচিব, সদস্যগন ও স্হানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, কুলাউড়ায় বিগত বন্যায়ও যেমন বন্যার্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিল আরডিআরএস বাংলাদেশ এবারও শীতে তেমনি শীতকালীন এসব জরুরি সহায়তা নিয়ে উপজেলার দরিদ্র মানুষের সেবায় নিয়োজিত রয়েছে সংস্থাটি। মুসলিম এইড ইউকের আর্থিক সহায়তার উপজেলার ৭শ’ ৯৫ পরিবারের মাঝে প্রাথমিকভাবে এ সহায়তা পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। একই কর্মসুচির মাধ্যমে আরও প্রায় চার শ’ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে নগদ আর্থিক সহায়তার আওতায় আনবে আরডিআরএস বাংলাদেশ।
আরডিআরএস বাংলাদেশের ডিরেক্টর-প্রোগ্রামস মুহম্মদ আব্দুস সামাদ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে এ শীত সহায়তা বিতরণ কার্যক্রম পর্যবেক্ষন করেন। এসময় তিনি জানান, আরও ব্যাপকভাবে শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে আরডিআরএস বাংলাদেশের। সামনে যে শৈত্যপ্রবাহ আসার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর তার আগেই তারা প্রকৃত উপকারভোগিদের হাতে এসকল সহায়তা পৌঁছে দিতে চান। তিনি বলেন, এতে করে মানুষের কষ্ট যেমন কমবে তেমনি ব্যায়িত অর্থের প্রতিও সুবিচার হবে।
আরডিআরএস বাংলাদেশ ইতোমধ্যে উত্তর ও উত্তরপূর্ব বঙ্গের সাতটি জেলার ৩ হাজার পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে। উত্তরবঙ্গের আরও কিছু পরিবারকে এ শীতকালীন সহায়তা দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে আরডিআরএস বাংলাদেশ।