হবিগঞ্জ ১০:১৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo ২২ দিন অন্ধকারে থাকার পর ব্যারিস্টার সুমনের সহযোগিতায় বিদ্যুৎ সংযোগ পেল ৩৪ টি পরিবার Logo মাধবপুরে আগুনে পুড়ে ছাই হলো মিলনের বেঁচে থাকার অবলম্বন Logo চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাচনে ১৭ প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল Logo সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান সহ-ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠন Logo বিদ্যুৎপৃষ্ঠে নিহতের পরিবারের পাশে ব্যারিস্টার সুমন-এমপি Logo টেকনাফের ব্যাবসায়ী ৫শ’ পিছ ইয়াবাসহ চুনারুঘাটে গ্রেপ্তার Logo চুনারুঘাটে তীব্র দাবদাহে সুপেয় পানি ও খাবার স্যালাইন বিতরণ Logo শেখ হাসিনার আধুনিক চিন্তা ধারায় বদলে গেল কৃষিখাত, ব্যারিস্টার সুমন Logo কথায় কথায় বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক তাদের কাম কি? মানুষের টাকা মেরে দেয়া, ব্যারিস্টার সুমন Logo বাহুবলে অবৈধভাবে মাটি উত্তোলন, জরিমানা ৫০ হাজার টাকা

মাধবপুরে বিরল প্রজাতির লজ্জাবতী বানর উদ্ধার

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলা থেকে বিরল প্রজাতির একটি লজ্জাবতী বানর উদ্ধার করে বনবিভাগ। গত
বুধবার (২০ এপ্রিল) রাত ১০ টায় মাধবপুর উপজেলার কমলপুর গ্রামের শিমুল মিয়ার বাড়িতে বানরটিকে দেখতে পায় স্থানীয় লোকজন। পরে খবর পেয়ে হবিগঞ্জ  বন বিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তা (বন্য প্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ) তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী ঘটনাস্থলে আসলে  বানরটিকে তার কাছে হস্তান্তর করা হয়।
এ বিষয়ে তোফায়েল আহমেদ চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বানরটিকে দরকারি পরিচর্যা শেষে  বিভাগীয় বন কর্মকর্তার (ডিএফও) অনুমোদন নিয়ে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে অবমুক্ত করা হবে। ধারণা করা হচ্ছে বানরটি গতকাল সন্ধ্যার পর কোনো এক সময় পার্শ্ববর্তী সীমান্ত এলাকা দিয়ে ভারত থেকে বাংলাদেশ ভুখন্ডে প্রবেশ করেছে।
ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

খন্দকার আলাউদ্দিন

হ্যালো, আমি খন্দকার আলাউদ্দিন, আপনাদের চারিপাশের সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করুন।
জনপ্রিয় সংবাদ

২২ দিন অন্ধকারে থাকার পর ব্যারিস্টার সুমনের সহযোগিতায় বিদ্যুৎ সংযোগ পেল ৩৪ টি পরিবার

মাধবপুরে বিরল প্রজাতির লজ্জাবতী বানর উদ্ধার

আপডেট সময় ০৫:১৭:০১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ এপ্রিল ২০২২
হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলা থেকে বিরল প্রজাতির একটি লজ্জাবতী বানর উদ্ধার করে বনবিভাগ। গত
বুধবার (২০ এপ্রিল) রাত ১০ টায় মাধবপুর উপজেলার কমলপুর গ্রামের শিমুল মিয়ার বাড়িতে বানরটিকে দেখতে পায় স্থানীয় লোকজন। পরে খবর পেয়ে হবিগঞ্জ  বন বিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তা (বন্য প্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ) তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী ঘটনাস্থলে আসলে  বানরটিকে তার কাছে হস্তান্তর করা হয়।
এ বিষয়ে তোফায়েল আহমেদ চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বানরটিকে দরকারি পরিচর্যা শেষে  বিভাগীয় বন কর্মকর্তার (ডিএফও) অনুমোদন নিয়ে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে অবমুক্ত করা হবে। ধারণা করা হচ্ছে বানরটি গতকাল সন্ধ্যার পর কোনো এক সময় পার্শ্ববর্তী সীমান্ত এলাকা দিয়ে ভারত থেকে বাংলাদেশ ভুখন্ডে প্রবেশ করেছে।