হবিগঞ্জ ০৯:২৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo ২২ দিন অন্ধকারে থাকার পর ব্যারিস্টার সুমনের সহযোগিতায় বিদ্যুৎ সংযোগ পেল ৩৪ টি পরিবার Logo মাধবপুরে আগুনে পুড়ে ছাই হলো মিলনের বেঁচে থাকার অবলম্বন Logo চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাচনে ১৭ প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল Logo সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান সহ-ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠন Logo বিদ্যুৎপৃষ্ঠে নিহতের পরিবারের পাশে ব্যারিস্টার সুমন-এমপি Logo টেকনাফের ব্যাবসায়ী ৫শ’ পিছ ইয়াবাসহ চুনারুঘাটে গ্রেপ্তার Logo চুনারুঘাটে তীব্র দাবদাহে সুপেয় পানি ও খাবার স্যালাইন বিতরণ Logo শেখ হাসিনার আধুনিক চিন্তা ধারায় বদলে গেল কৃষিখাত, ব্যারিস্টার সুমন Logo কথায় কথায় বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক তাদের কাম কি? মানুষের টাকা মেরে দেয়া, ব্যারিস্টার সুমন Logo বাহুবলে অবৈধভাবে মাটি উত্তোলন, জরিমানা ৫০ হাজার টাকা

চুনারুঘাটে মোটর চুরি ঘটনায় একটি মহল গোলা পানিতে মাছ শিকারের অচেষ্টায় লিপ্ত

চুনারুঘাট উপজেলার কাচুয়া বাজারের রফিক মিয়ার দোকানের সামন থেকে হিরো গ্লামার মোটর চুরি হয়। কিন্ত এ ঘটনায় নিয়ে একটি মহল গোলা পানিতে মাছ শিকারের অচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। গত ইউপি নিবার্চনের ৩নং দেওরগাছ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের পরাজিত প্রার্থী ফারুক মিয়াকে ফাসাঁনোর অপচেষ্টা চলছে বলে দাবী করেছে ফারুক মিয়া।
স্থানীয় বাসিন্দা ও ফারুক মিয়া জানান, সদ্য অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনের উপজেলার দেওরগাছ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করেন তিনি। তার সাথে নির্বাচনে প্রতিদ্ধন্দি¦তা করেন বর্তমান ইউপি সদস্য মোঃ আব্দুল আলী ওরফে লাল মিয়া। উক্ত নির্বাচনে না দাড়াঁনোর জন্য লাল মিয়া ফারুক মিয়াকে অনুরোধও জানান এবং বিশেষ কায়দায় বসানোর চেষ্টা করলেও তিনি নির্বাচন করেন। ওই নির্বাচনে ফারুক পরাজয় লাভ করেন। নির্বাচনের জের ধরে বর্তমান ইউপি সদস্য লাল মিয়ার সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়। ফারুকের দাবী নির্বাচনের বিরোধের জেরেই মোটর সাইকেল চুরি মামলায় তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা চলছে।

গত ২৪শে মার্চ কাচুয়া বাজার¯’ রফিক মিয়ার দোকানের সম্মুখ থেকে ইউপি সদস্য লাল মিয়ার মোটর সাইকেল চুরি হয়। পুলিশ মোটর সাইকেল চুরির অভিযোগে মাধবপুর উপজেলার শাহজিবাজার থেকে বাপ্পী (২৪) কে গ্রেফতার করে। তাঁর স্বীকারোক্তি মোতাবেক কাওছার (৩৫) কে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার ব্রাহ্মণগাও থেকে চোরাই মোটর সাইকেল সহ গ্রেফতার করেন।
চুরির ঘটনায় চুনারুঘাট থানায় ১ জনকে আসামী করে মামলা করেন ইউপি সদস্য লাল মিয়া। মামলার আসামী উপজেলার কালিচুং গ্রামের মৃত ছিদ্দিক আলীর পুত্র কাওছার মিয়াকে অভিযুক্ত করেন তিনি।
পুলিশ কাউছারকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে কাউছার ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে এবং নোয়াবাদ গ্রামের আনোয়ার মিয়ার পুত্র বাপ্পি উসমানও জড়িত বলে জানায়। বাপ্পি উসমান এর বিরুদ্ধে গাছ চুরি, মাদক মামলা সহ নানান অপকর্মের অভিযোগ রয়েছে। বাপ্পি ও কাউছারকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাপ্পি আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দিয়েছে বলে পুলিশ জানায়।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

খন্দকার আলাউদ্দিন

হ্যালো, আমি খন্দকার আলাউদ্দিন, আপনাদের চারিপাশের সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করুন।
জনপ্রিয় সংবাদ

২২ দিন অন্ধকারে থাকার পর ব্যারিস্টার সুমনের সহযোগিতায় বিদ্যুৎ সংযোগ পেল ৩৪ টি পরিবার

চুনারুঘাটে মোটর চুরি ঘটনায় একটি মহল গোলা পানিতে মাছ শিকারের অচেষ্টায় লিপ্ত

আপডেট সময় ১২:০১:৩৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩১ মার্চ ২০২২

চুনারুঘাট উপজেলার কাচুয়া বাজারের রফিক মিয়ার দোকানের সামন থেকে হিরো গ্লামার মোটর চুরি হয়। কিন্ত এ ঘটনায় নিয়ে একটি মহল গোলা পানিতে মাছ শিকারের অচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। গত ইউপি নিবার্চনের ৩নং দেওরগাছ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের পরাজিত প্রার্থী ফারুক মিয়াকে ফাসাঁনোর অপচেষ্টা চলছে বলে দাবী করেছে ফারুক মিয়া।
স্থানীয় বাসিন্দা ও ফারুক মিয়া জানান, সদ্য অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনের উপজেলার দেওরগাছ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করেন তিনি। তার সাথে নির্বাচনে প্রতিদ্ধন্দি¦তা করেন বর্তমান ইউপি সদস্য মোঃ আব্দুল আলী ওরফে লাল মিয়া। উক্ত নির্বাচনে না দাড়াঁনোর জন্য লাল মিয়া ফারুক মিয়াকে অনুরোধও জানান এবং বিশেষ কায়দায় বসানোর চেষ্টা করলেও তিনি নির্বাচন করেন। ওই নির্বাচনে ফারুক পরাজয় লাভ করেন। নির্বাচনের জের ধরে বর্তমান ইউপি সদস্য লাল মিয়ার সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়। ফারুকের দাবী নির্বাচনের বিরোধের জেরেই মোটর সাইকেল চুরি মামলায় তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা চলছে।

গত ২৪শে মার্চ কাচুয়া বাজার¯’ রফিক মিয়ার দোকানের সম্মুখ থেকে ইউপি সদস্য লাল মিয়ার মোটর সাইকেল চুরি হয়। পুলিশ মোটর সাইকেল চুরির অভিযোগে মাধবপুর উপজেলার শাহজিবাজার থেকে বাপ্পী (২৪) কে গ্রেফতার করে। তাঁর স্বীকারোক্তি মোতাবেক কাওছার (৩৫) কে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার ব্রাহ্মণগাও থেকে চোরাই মোটর সাইকেল সহ গ্রেফতার করেন।
চুরির ঘটনায় চুনারুঘাট থানায় ১ জনকে আসামী করে মামলা করেন ইউপি সদস্য লাল মিয়া। মামলার আসামী উপজেলার কালিচুং গ্রামের মৃত ছিদ্দিক আলীর পুত্র কাওছার মিয়াকে অভিযুক্ত করেন তিনি।
পুলিশ কাউছারকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে কাউছার ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে এবং নোয়াবাদ গ্রামের আনোয়ার মিয়ার পুত্র বাপ্পি উসমানও জড়িত বলে জানায়। বাপ্পি উসমান এর বিরুদ্ধে গাছ চুরি, মাদক মামলা সহ নানান অপকর্মের অভিযোগ রয়েছে। বাপ্পি ও কাউছারকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাপ্পি আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দিয়েছে বলে পুলিশ জানায়।