হবিগঞ্জ ০৩:৪৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo আমার স্ত্রী সন্তানদের কোনো সম্পত্তির মালিক হতে দিব না, ব্যারিস্টার সুমন Logo আইনশৃঙ্খলায় অবদান রাক্ষায় জেলার শ্রেষ্ঠ হলেন চুনারুঘাট থানার ওসি হিল্লোল রায় Logo চুনারুঘাটে এফ.এন ফাউন্ডেশন ইউকে’র চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিনের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল Logo ফ্রেন্ডস ফাউন্ডেশন ও এসএসসি’৯১ ব্যাচ সিলেট বিভাগের মানবিক কার্যক্রম সম্পন্ন Logo চুনারুঘাটে যৌতুকের দাবীতে গর্ভবতী গৃহবধুকে ৫ দিন যাবৎ অমানুষিক নির্যাতন : ৯৯৯ কল পেয়ে উদ্ধার করল পুলিশ Logo হবিগঞ্জে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির স্বল্প মূল্যে চাল বিক্রয় শুরু : তদারকিতে খাদ্য বিভাগ Logo মাধবপুরে বাংলাদেশ প্রাঃ বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক সমিতি ও বাংলাদেশ সরকারি প্রাঃ বিদ্যাঃ সমিতির যৌথ ইফতার মাহফিল Logo চুনারুঘাট সাংবাদিক ফোরামের দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত Logo চুনারুঘাটে চেয়ারম্যান প্রার্থী আশরাফ ছিদ্দিকীর উদ্যোগে দরিদ্রদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ Logo বঙ্গবন্ধু পরিষদ রংপুর জেলার মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস পালন

মাধবপুরের চা-বাগানে চাঞ্চল্যকর ডাকাতির ঘটনায় ৯ ডাকাত গ্রেফতার

  • মোঃ এরশাদ আলী :
  • আপডেট সময় ০৪:৪৩:০৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০২৩
  • ৫৩ বার পড়া হয়েছে

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার সুরমা চা বাগানে সংগঠিত দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনায় ডাকাত দলের মূলহোতা ও লুণ্ঠিত মালামালসহ ৯ ডাকাত কে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৯ একটি টিমও মাধবপুর থানার পুলিশ ।

গ্রেফতারকৃত ডাকাতদের আজ রবিবার (১৭ ডিসেম্বর) দুপুরে হবিগঞ্জ জেল কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলার চানপুর গ্রামের আবু জাহের শুক্কর মিয়ার পুত্র এমদাদুল হক মিলন(৩৮)ওরফে রিপন মিয়া, একই গ্রামের মোঃ শফিকুল ইসলামের পুত্র মোঃ নাজমুল ইসলাম নাজমুল (৩১), আবু সাঈদের পুত্র মোঃ হৃদয় মিয়া (২৮), হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার আন্দিউড়া ইউনিয়নের বারচান্দুরা গ্রামের মৃত ফজলুল হকের পুত্র মো: রমজান মিয়া (৩২), একই উপজেলার চৌমুহনী ইউনিয়নের হবিবপুর গ্রামের মৃত তাজুল ইসলাম এর পুত্র মো: রুবেল মিয়া (২৫), শাহজাহানপুর ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের মৃত নানু মিয়ার পুত্র মো: কামাল মিয়া(২৭), মাধবপুর পৌরসভার মেরাগাছ এলাকার মো: ছুরুক মিয়ার পুত্র মো: শাব্বাশ মিয়া(২০) ও জাহের মিয়ার পুত্র স্বপন মিয়া(২১) এবং পূর্ব মাধবপুর গ্রামের মো: ছাবেদ আলীর পুত্র মো: শামীম হোসেন ইমরান (২১)।

মাধবপুর থানার ওসি রাকিবুল ইসলাম খাঁন জানান, শুক্রবার দিবাগত রাতে ও শনিবার দিনব্যাপী মাধবপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ছয় ডাকাতকে গ্রেফতার করা হয়।

র‍্যাব ৯ এর মিডিয়া অফিসার সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ মশিহুর রহমান সোহেল জানান, গত শুক্রবার দুপুরে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‍্যাব-৯, ব্রাহ্মণবাড়িয়া কোম্পানি কমান্ডারের নেতৃত্বে একটি আভিযানিক দল ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ৩-ডাকাতকে গ্রেফতার করে মাধবপুর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। উল্লেখ্য গত বুধবার( ১২ ডিসেম্বর) মাধবপুর উপজেলার সুরমা চা বাগান এলাকায় ঢাকা সিলেট পুরাতন মহাসড়ক থেকে তেলিয়াপাড়া চা বাগানে যাওয়ার ফাঁড়ি রাস্তায় গাছ ফেলে রাত সাড়ে ৯টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত দেড় ঘন্টা ব্যাপি ডাকাতি সংগঠিত হয়।

এসময় ন্যাশনাল টি কোম্পানির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার এমদাদুল হক মিঠু ও তার পরিবার এবং স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন চৌধুরী সহ ২০/২৫ জনকে অস্ত্রের মুখে আটক করে হাত পা মুখ বেধে সবকিছু নিয়ে যায় ১৫/১৬ সদস্যের ডাকাতদল।

পরবর্তীতে ওই ঘটনায় ১৩ ডিসেম্বর বাগানের গাড়ীর চালক বাদী হয়ে মাধবপুর থানায় অজ্ঞাতনামা ১৫/১৬ জনের বিরুদ্ধে একটি ডাকাতি মামলা দায়ের করে। মাধবপুর সার্কেল এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার নির্মলেন্দু চক্রবর্তী জানান, ডাকাত দলের পলাতক সদস্যদের পরিচয় পাওয়া গেছে। বাকি ডাকাতদের গ্রেফতারে আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

খন্দকার আলাউদ্দিন

হ্যালো, আমি খন্দকার আলাউদ্দিন, আপনাদের চারিপাশের সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করুন।
জনপ্রিয় সংবাদ

আমার স্ত্রী সন্তানদের কোনো সম্পত্তির মালিক হতে দিব না, ব্যারিস্টার সুমন

মাধবপুরের চা-বাগানে চাঞ্চল্যকর ডাকাতির ঘটনায় ৯ ডাকাত গ্রেফতার

আপডেট সময় ০৪:৪৩:০৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০২৩

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার সুরমা চা বাগানে সংগঠিত দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনায় ডাকাত দলের মূলহোতা ও লুণ্ঠিত মালামালসহ ৯ ডাকাত কে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৯ একটি টিমও মাধবপুর থানার পুলিশ ।

গ্রেফতারকৃত ডাকাতদের আজ রবিবার (১৭ ডিসেম্বর) দুপুরে হবিগঞ্জ জেল কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলার চানপুর গ্রামের আবু জাহের শুক্কর মিয়ার পুত্র এমদাদুল হক মিলন(৩৮)ওরফে রিপন মিয়া, একই গ্রামের মোঃ শফিকুল ইসলামের পুত্র মোঃ নাজমুল ইসলাম নাজমুল (৩১), আবু সাঈদের পুত্র মোঃ হৃদয় মিয়া (২৮), হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার আন্দিউড়া ইউনিয়নের বারচান্দুরা গ্রামের মৃত ফজলুল হকের পুত্র মো: রমজান মিয়া (৩২), একই উপজেলার চৌমুহনী ইউনিয়নের হবিবপুর গ্রামের মৃত তাজুল ইসলাম এর পুত্র মো: রুবেল মিয়া (২৫), শাহজাহানপুর ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের মৃত নানু মিয়ার পুত্র মো: কামাল মিয়া(২৭), মাধবপুর পৌরসভার মেরাগাছ এলাকার মো: ছুরুক মিয়ার পুত্র মো: শাব্বাশ মিয়া(২০) ও জাহের মিয়ার পুত্র স্বপন মিয়া(২১) এবং পূর্ব মাধবপুর গ্রামের মো: ছাবেদ আলীর পুত্র মো: শামীম হোসেন ইমরান (২১)।

মাধবপুর থানার ওসি রাকিবুল ইসলাম খাঁন জানান, শুক্রবার দিবাগত রাতে ও শনিবার দিনব্যাপী মাধবপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ছয় ডাকাতকে গ্রেফতার করা হয়।

র‍্যাব ৯ এর মিডিয়া অফিসার সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ মশিহুর রহমান সোহেল জানান, গত শুক্রবার দুপুরে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‍্যাব-৯, ব্রাহ্মণবাড়িয়া কোম্পানি কমান্ডারের নেতৃত্বে একটি আভিযানিক দল ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ৩-ডাকাতকে গ্রেফতার করে মাধবপুর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। উল্লেখ্য গত বুধবার( ১২ ডিসেম্বর) মাধবপুর উপজেলার সুরমা চা বাগান এলাকায় ঢাকা সিলেট পুরাতন মহাসড়ক থেকে তেলিয়াপাড়া চা বাগানে যাওয়ার ফাঁড়ি রাস্তায় গাছ ফেলে রাত সাড়ে ৯টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত দেড় ঘন্টা ব্যাপি ডাকাতি সংগঠিত হয়।

এসময় ন্যাশনাল টি কোম্পানির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার এমদাদুল হক মিঠু ও তার পরিবার এবং স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন চৌধুরী সহ ২০/২৫ জনকে অস্ত্রের মুখে আটক করে হাত পা মুখ বেধে সবকিছু নিয়ে যায় ১৫/১৬ সদস্যের ডাকাতদল।

পরবর্তীতে ওই ঘটনায় ১৩ ডিসেম্বর বাগানের গাড়ীর চালক বাদী হয়ে মাধবপুর থানায় অজ্ঞাতনামা ১৫/১৬ জনের বিরুদ্ধে একটি ডাকাতি মামলা দায়ের করে। মাধবপুর সার্কেল এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার নির্মলেন্দু চক্রবর্তী জানান, ডাকাত দলের পলাতক সদস্যদের পরিচয় পাওয়া গেছে। বাকি ডাকাতদের গ্রেফতারে আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে।