হবিগঞ্জ ০৯:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo ধান চাল যারা নিবেন, সঠিক নিয়মে যাতে নিতে পারেন, ব্যারিস্টার সুমন এমপি Logo ২২ দিন অন্ধকারে থাকার পর ব্যারিস্টার সুমনের সহযোগিতায় বিদ্যুৎ সংযোগ পেল ৩৪ টি পরিবার Logo মাধবপুরে আগুনে পুড়ে ছাই হলো মিলনের বেঁচে থাকার অবলম্বন Logo চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাচনে ১৭ প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল Logo সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান সহ-ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠন Logo বিদ্যুৎপৃষ্ঠে নিহতের পরিবারের পাশে ব্যারিস্টার সুমন-এমপি Logo টেকনাফের ব্যাবসায়ী ৫শ’ পিছ ইয়াবাসহ চুনারুঘাটে গ্রেপ্তার Logo চুনারুঘাটে তীব্র দাবদাহে সুপেয় পানি ও খাবার স্যালাইন বিতরণ Logo শেখ হাসিনার আধুনিক চিন্তা ধারায় বদলে গেল কৃষিখাত, ব্যারিস্টার সুমন Logo কথায় কথায় বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক তাদের কাম কি? মানুষের টাকা মেরে দেয়া, ব্যারিস্টার সুমন

আজমিরীগঞ্জে মডেল মসজিদের দোহাই দিয়ে বালু উত্তোলনঃ ভ্রাম্যমাণ আদালত ৫০ হাজার জরিমানা

আজমিরীগঞ্জে মডেল মসজিদের দোহাই দিয়ে কালনী নদী থেকে ধাপে ধাপে চলছে অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিনের মাধ্যমে বালু উত্তোলন।অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে লিপ্ত থাকার দায়ে একজনকে অর্ধলাখ টাকা জরিমানা প্রদান করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জানাযায়, আজমিরীগঞ্জ উপজেলা মডেল মসজিদের দোহাই দিয়ে কালনী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে মেতে উঠেছে একদল বালুখেকু চক্র। ফলে বিভিন্ন সময় উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে কিছু দিন নীরব থাকার পর আবারও তারা কালনী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে মেতে উঠে।কালনীর তলদেশ থেকে বালু উত্তোলনের ফলে নদী ভাঙনের কবলে পড়ে অনেক পরিবারই সর্বশান্ত হয়ে পড়েছে।ভূগর্ভে তলীয়ে যাচ্ছে শত শত বর্গ একর ফসলী জমি।

যার ধরুন গেল বছরে জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে নদী ভাঙন রোধে পানি উন্নয়ন বোর্ডের পাটের বস্তা এবং বাঁধ নির্মাণে নদী ভাঙনের কবল থেকে রক্ষা পায় কয়েকশ’ত পরিবার।

সূত্রেজানাযায়, বালুখেকো চক্র উপজেলা মডেল মসজিদের দোহাই দিয়ে কালনী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে মসজিদ ও বাজারের বিভিন্ন স্থানে জায়গা ভরাটে মেতে উঠে।
পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ড্রেজারের মাধ্যমে মাটি উত্তোলনে নিমজ্জিত থাকায় কবির মিয়া(২৩)-কে বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ অনুসারে ৫০’হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।জরিমানাপ্রাপ্ত কবির মিয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসির নগর থানার কদমতলীর সা্ত্তার মিয়ার পুত্র।এসময় ড্রেজারে জড়িত থাকা একি জেলার আরো দু’জন শ্রমিক আলাউদ্দীন মিয়া(২২) ও শাহজাহান মিয়া(২০)কে ভবিষ্যতে ড্রেজিংয়ে লিপ্ত থাকবে না মর্মে মুচলেকা নেয়া হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেড সহকারী কর্মকর্তা ভূমি শফিকুল ইসলাম।

সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করেন আজমিরীগঞ্জ থানার এএসআই প্রদীপ দাশের নেতৃত্বে একটি দল।

এবিষয়ে জানতে চাইলে শফিকুল ইসলাম জানান, কালনী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে একজন জরিমানা এবং সাথে থাকা দু’জন শ্রমিকের মুচলেকা নিই।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

খন্দকার আলাউদ্দিন

হ্যালো, আমি খন্দকার আলাউদ্দিন, আপনাদের চারিপাশের সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করুন।
জনপ্রিয় সংবাদ

ধান চাল যারা নিবেন, সঠিক নিয়মে যাতে নিতে পারেন, ব্যারিস্টার সুমন এমপি

আজমিরীগঞ্জে মডেল মসজিদের দোহাই দিয়ে বালু উত্তোলনঃ ভ্রাম্যমাণ আদালত ৫০ হাজার জরিমানা

আপডেট সময় ১১:৩৩:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ এপ্রিল ২০২২

আজমিরীগঞ্জে মডেল মসজিদের দোহাই দিয়ে কালনী নদী থেকে ধাপে ধাপে চলছে অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিনের মাধ্যমে বালু উত্তোলন।অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে লিপ্ত থাকার দায়ে একজনকে অর্ধলাখ টাকা জরিমানা প্রদান করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জানাযায়, আজমিরীগঞ্জ উপজেলা মডেল মসজিদের দোহাই দিয়ে কালনী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে মেতে উঠেছে একদল বালুখেকু চক্র। ফলে বিভিন্ন সময় উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে কিছু দিন নীরব থাকার পর আবারও তারা কালনী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে মেতে উঠে।কালনীর তলদেশ থেকে বালু উত্তোলনের ফলে নদী ভাঙনের কবলে পড়ে অনেক পরিবারই সর্বশান্ত হয়ে পড়েছে।ভূগর্ভে তলীয়ে যাচ্ছে শত শত বর্গ একর ফসলী জমি।

যার ধরুন গেল বছরে জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে নদী ভাঙন রোধে পানি উন্নয়ন বোর্ডের পাটের বস্তা এবং বাঁধ নির্মাণে নদী ভাঙনের কবল থেকে রক্ষা পায় কয়েকশ’ত পরিবার।

সূত্রেজানাযায়, বালুখেকো চক্র উপজেলা মডেল মসজিদের দোহাই দিয়ে কালনী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে মসজিদ ও বাজারের বিভিন্ন স্থানে জায়গা ভরাটে মেতে উঠে।
পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ড্রেজারের মাধ্যমে মাটি উত্তোলনে নিমজ্জিত থাকায় কবির মিয়া(২৩)-কে বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ অনুসারে ৫০’হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।জরিমানাপ্রাপ্ত কবির মিয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসির নগর থানার কদমতলীর সা্ত্তার মিয়ার পুত্র।এসময় ড্রেজারে জড়িত থাকা একি জেলার আরো দু’জন শ্রমিক আলাউদ্দীন মিয়া(২২) ও শাহজাহান মিয়া(২০)কে ভবিষ্যতে ড্রেজিংয়ে লিপ্ত থাকবে না মর্মে মুচলেকা নেয়া হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেড সহকারী কর্মকর্তা ভূমি শফিকুল ইসলাম।

সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করেন আজমিরীগঞ্জ থানার এএসআই প্রদীপ দাশের নেতৃত্বে একটি দল।

এবিষয়ে জানতে চাইলে শফিকুল ইসলাম জানান, কালনী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে একজন জরিমানা এবং সাথে থাকা দু’জন শ্রমিকের মুচলেকা নিই।