হবিগঞ্জ ০৩:২৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo চা-বাগান এলাকায় এই প্রথম বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপন করলেন ব্যারিস্টার সুমন Logo এবার ঈদের ছুটিতে পর্যটকদের জন্য নতুন রূপে চুনারুঘাটের পর্যটন এলাকাকে সাজালেন ব্যারিস্টার সুমন Logo সাম্যের ঈদ চাই !!  মো: মাহমুদ হাসান  Logo নিজের পালিত গরু এমপি সুমনকে উপহার দিলেন এক ভক্ত Logo শায়েস্তাগঞ্জে ইয়াবাসহ মুদি মাল ব্যবসায়ী গ্রেফতার Logo শ্রেষ্ঠ এএসআই চুনারুঘাট থানার মনির হোসেন Logo দ্বিতীয় গোপালগঞ্জে’ আওয়ামী বিরোধীদের উত্থানের নেপথ্যে কী? Logo চুনারুঘাটে আরো ৭১টি পরিবার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর নতুন ঘর Logo চুনারুঘাটে ৭দিন ব্যাপী ভূমিসেবা সপ্তাহের উদ্বোধন  Logo ৪০ বছরের পুরাতন খোয়াই নদীতে স্পিডবোট ভাসালেন ব্যারিস্টার সুমন
ঐতিহ্যবাহী এই খেলার মাঠটি নষ্ট করে চা বাগান তৈরী শুরু করায় অসহায় হয়ে পরেছে স্থানীয় শিশু কিশোরা

মাধবপুরে শত বছরের পুরনো খেলার মাঠে হচ্ছে চা বাগান

মাধবপুরে শত বছরের পুরনো একটি খেলার মাঠ নষ্ট করে চা বাগান করা হচ্ছে। উপজেলার শাহজাহানপুর ইউনিয়নের তেলিয়াপাড়ায় অবস্থিত ২ একর ৫৭ শতাংশের বিশাল খেলার মাঠটি ছিল এলাকার প্রধান ও কয়েকটি গ্রামের একমাত্র খেলার মাঠ। আশপাশের তেলিয়াপাড়া, পরমানন্দপুর, সুরমা চা বাগান নতুন টিলা, উত্তর সুরমা সহ কয়েকটি গ্রামের শিশু কিশোরেরা এই মাঠে খেলাধুলা করতো। দেশের স্বনামধন্য অনেক ফুটবলার ক্রিকেটার এই মাঠে বড় বড় টুর্নামেন্টে এসে খেলে গেছেন। বৃটিশ আমলে তৎকালীন জমিদার সরুজ চৌধুরীর আমন্ত্রণে কলকাতা মোহনবাগান ক্লাব এই মাঠে প্রতি ফুটবল ম্যাচ খেলে গেছেন। ঐতিহ্যবাহী এই খেলার মাঠটি নষ্ট করে চা বাগান তৈরী শুরু করায় অসহায় হয়ে পরেছে স্থানীয় শিশু কিশোরেরা। তেলিয়াপাড়া গ্রামের কিশোর ফয়সাল জানায়, সুরমা চা বাগান কর্তৃপক্ষ প্রথমে একটু একটু করে মাঠের কিছু অংশ দখল করে মাঠটিকে ছোট করে ফেলে। এক পর্যায়ে স্থানীয় এক প্রভাবশালী ব্যক্তিকে মাঠটি তিন বছরের জন্য সাব লিজ দিয়ে দেয়। এলাকার শিশু কিশোরেরা সুরমা চা বাগানের মালিক পক্ষের প্রতিনিধি নবাব আব্দুল করিম এর সঙ্গে দেখা করে এর প্রতিবাদ করলে তারা লিজের মেয়াদ শেষ হলে পুনরায় খেলার মাঠটি খেলাধুলার জন্য ফিরিয়ে দিবেন বলে কথা দেন। কিন্তু লিজের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই নবাব আব্দুল করিম এর মৃত্যু হয়। পরবর্তীতে লিজের মেয়াদ শেষ হলে নতুন কর্তৃপক্ষ মাঠটিতে চা বাগান করার জন্য কার্যক্রম চালাচ্ছে। এ ব্যাপারে বক্তব্য নেয়ার জন্য সুরমা চা বাগানের ব্যবস্থাপক মো:আবুল কাসেম এর মোবাইল নাম্বারে বেশ কয়েকবার ফোন করলে ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। শাহজাহানপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো: পারভেজ হোসেন চৌধুরী বলেন, এটি একটি প্রাচীন খেলার মাঠ। এই মাঠে আমরা খেলাধুলা করেছি। কর্তৃপক্ষের নিকট আমার জোর দাবি এলাকার শিশু কিশোরদের খেলাধুলার জন্য মাঠটি ফিরিয়ে দেয়া হোক।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

খন্দকার আলাউদ্দিন

হ্যালো, আমি খন্দকার আলাউদ্দিন, আপনাদের চারিপাশের সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করুন।
জনপ্রিয় সংবাদ

চা-বাগান এলাকায় এই প্রথম বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপন করলেন ব্যারিস্টার সুমন

ঐতিহ্যবাহী এই খেলার মাঠটি নষ্ট করে চা বাগান তৈরী শুরু করায় অসহায় হয়ে পরেছে স্থানীয় শিশু কিশোরা

মাধবপুরে শত বছরের পুরনো খেলার মাঠে হচ্ছে চা বাগান

আপডেট সময় ১১:৫৪:৩৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৫ মে ২০২২

মাধবপুরে শত বছরের পুরনো একটি খেলার মাঠ নষ্ট করে চা বাগান করা হচ্ছে। উপজেলার শাহজাহানপুর ইউনিয়নের তেলিয়াপাড়ায় অবস্থিত ২ একর ৫৭ শতাংশের বিশাল খেলার মাঠটি ছিল এলাকার প্রধান ও কয়েকটি গ্রামের একমাত্র খেলার মাঠ। আশপাশের তেলিয়াপাড়া, পরমানন্দপুর, সুরমা চা বাগান নতুন টিলা, উত্তর সুরমা সহ কয়েকটি গ্রামের শিশু কিশোরেরা এই মাঠে খেলাধুলা করতো। দেশের স্বনামধন্য অনেক ফুটবলার ক্রিকেটার এই মাঠে বড় বড় টুর্নামেন্টে এসে খেলে গেছেন। বৃটিশ আমলে তৎকালীন জমিদার সরুজ চৌধুরীর আমন্ত্রণে কলকাতা মোহনবাগান ক্লাব এই মাঠে প্রতি ফুটবল ম্যাচ খেলে গেছেন। ঐতিহ্যবাহী এই খেলার মাঠটি নষ্ট করে চা বাগান তৈরী শুরু করায় অসহায় হয়ে পরেছে স্থানীয় শিশু কিশোরেরা। তেলিয়াপাড়া গ্রামের কিশোর ফয়সাল জানায়, সুরমা চা বাগান কর্তৃপক্ষ প্রথমে একটু একটু করে মাঠের কিছু অংশ দখল করে মাঠটিকে ছোট করে ফেলে। এক পর্যায়ে স্থানীয় এক প্রভাবশালী ব্যক্তিকে মাঠটি তিন বছরের জন্য সাব লিজ দিয়ে দেয়। এলাকার শিশু কিশোরেরা সুরমা চা বাগানের মালিক পক্ষের প্রতিনিধি নবাব আব্দুল করিম এর সঙ্গে দেখা করে এর প্রতিবাদ করলে তারা লিজের মেয়াদ শেষ হলে পুনরায় খেলার মাঠটি খেলাধুলার জন্য ফিরিয়ে দিবেন বলে কথা দেন। কিন্তু লিজের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই নবাব আব্দুল করিম এর মৃত্যু হয়। পরবর্তীতে লিজের মেয়াদ শেষ হলে নতুন কর্তৃপক্ষ মাঠটিতে চা বাগান করার জন্য কার্যক্রম চালাচ্ছে। এ ব্যাপারে বক্তব্য নেয়ার জন্য সুরমা চা বাগানের ব্যবস্থাপক মো:আবুল কাসেম এর মোবাইল নাম্বারে বেশ কয়েকবার ফোন করলে ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। শাহজাহানপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো: পারভেজ হোসেন চৌধুরী বলেন, এটি একটি প্রাচীন খেলার মাঠ। এই মাঠে আমরা খেলাধুলা করেছি। কর্তৃপক্ষের নিকট আমার জোর দাবি এলাকার শিশু কিশোরদের খেলাধুলার জন্য মাঠটি ফিরিয়ে দেয়া হোক।