হবিগঞ্জ ০২:৪৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo চা-বাগান এলাকায় এই প্রথম বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপন করলেন ব্যারিস্টার সুমন Logo এবার ঈদের ছুটিতে পর্যটকদের জন্য নতুন রূপে চুনারুঘাটের পর্যটন এলাকাকে সাজালেন ব্যারিস্টার সুমন Logo সাম্যের ঈদ চাই !!  মো: মাহমুদ হাসান  Logo নিজের পালিত গরু এমপি সুমনকে উপহার দিলেন এক ভক্ত Logo শায়েস্তাগঞ্জে ইয়াবাসহ মুদি মাল ব্যবসায়ী গ্রেফতার Logo শ্রেষ্ঠ এএসআই চুনারুঘাট থানার মনির হোসেন Logo দ্বিতীয় গোপালগঞ্জে’ আওয়ামী বিরোধীদের উত্থানের নেপথ্যে কী? Logo চুনারুঘাটে আরো ৭১টি পরিবার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর নতুন ঘর Logo চুনারুঘাটে ৭দিন ব্যাপী ভূমিসেবা সপ্তাহের উদ্বোধন  Logo ৪০ বছরের পুরাতন খোয়াই নদীতে স্পিডবোট ভাসালেন ব্যারিস্টার সুমন
পিতা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ৫ জনকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা

কুলাউড়ার একটি স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ

কুলাউড়ার একটি বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রীকে (১৭) গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।গত বৃহস্পতিবার (২৬ মে) রাতে ওই শিক্ষার্থীর পিতা কুলাউড়া থানায় ৪ জনের নামোল্লেখসহ অজ্ঞাত অপর একজনকে আসামী করে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। ওই রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত মুকিদ মিয়া ও আব্দুছ ছত্তার নামক অভিযুক্ত দুজনকে গ্রেপ্তার করে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার (২৫ মে) বিকেলে বিদ্যালয়ের ছুটি শেষে ওই ছাত্রী তার ছেলে বন্ধুর সাথে উপজেলার হিঙ্গাজিয়া রাবার বাগানে বেড়াতে যান। এ সময় সেখানে ব্রাহ্মণবাজারের বাসুদেবপুরের মৃত মাহমুদ মিয়ার ছেলে মুকিদ মিয়া (৩৫), হিংগাজিয়া চা বাগানের বাসিন্দা জামাল মিয়ার ছেলে জসিম মিয়া (২৮), লংলা খাস নতুন বস্তির বাসিন্দা মো. শমশের মিয়ার ছেলে আব্দুছ ছত্তার (১৯), হিংগাজিয়া চা বাগানের বড় লাইন এলাকার মছদ্দর আলীর ছেলে মোস্তফা মিয়া (২৫) এবং অজ্ঞাতনামা আরও ১ জন ছিলেন। ওই ছাত্রী ও তার বন্ধুকে একা পেয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে বাগানের নির্জন স্থানে নিয়ে যায় ওই ৫ যুবক। ছাত্রীর বন্ধুকে হাত-মুখ বেধে ওই কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। এতে ওই ছাত্রী জ্ঞান হারিয়ে ফেললে ওই যুবকরা তাকে সেখানে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। জ্ঞান ফেরার পর ওই ছাত্রী রাতে বাড়িতে ফিরে গিয়ে অভিভাবককে বিষয়টি জানান।

কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ বিনয় ভূষণ রায় জানান, ওই ছাত্রীর পিতা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ৫ জনকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা (নং ৪৩) দায়ের করেন। ঘটনার সাথে জড়িত দু’জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

খন্দকার আলাউদ্দিন

হ্যালো, আমি খন্দকার আলাউদ্দিন, আপনাদের চারিপাশের সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করুন।
জনপ্রিয় সংবাদ

চা-বাগান এলাকায় এই প্রথম বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপন করলেন ব্যারিস্টার সুমন

পিতা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ৫ জনকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা

কুলাউড়ার একটি স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ

আপডেট সময় ০৭:৩০:৩০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২

কুলাউড়ার একটি বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রীকে (১৭) গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।গত বৃহস্পতিবার (২৬ মে) রাতে ওই শিক্ষার্থীর পিতা কুলাউড়া থানায় ৪ জনের নামোল্লেখসহ অজ্ঞাত অপর একজনকে আসামী করে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। ওই রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত মুকিদ মিয়া ও আব্দুছ ছত্তার নামক অভিযুক্ত দুজনকে গ্রেপ্তার করে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার (২৫ মে) বিকেলে বিদ্যালয়ের ছুটি শেষে ওই ছাত্রী তার ছেলে বন্ধুর সাথে উপজেলার হিঙ্গাজিয়া রাবার বাগানে বেড়াতে যান। এ সময় সেখানে ব্রাহ্মণবাজারের বাসুদেবপুরের মৃত মাহমুদ মিয়ার ছেলে মুকিদ মিয়া (৩৫), হিংগাজিয়া চা বাগানের বাসিন্দা জামাল মিয়ার ছেলে জসিম মিয়া (২৮), লংলা খাস নতুন বস্তির বাসিন্দা মো. শমশের মিয়ার ছেলে আব্দুছ ছত্তার (১৯), হিংগাজিয়া চা বাগানের বড় লাইন এলাকার মছদ্দর আলীর ছেলে মোস্তফা মিয়া (২৫) এবং অজ্ঞাতনামা আরও ১ জন ছিলেন। ওই ছাত্রী ও তার বন্ধুকে একা পেয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে বাগানের নির্জন স্থানে নিয়ে যায় ওই ৫ যুবক। ছাত্রীর বন্ধুকে হাত-মুখ বেধে ওই কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। এতে ওই ছাত্রী জ্ঞান হারিয়ে ফেললে ওই যুবকরা তাকে সেখানে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। জ্ঞান ফেরার পর ওই ছাত্রী রাতে বাড়িতে ফিরে গিয়ে অভিভাবককে বিষয়টি জানান।

কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ বিনয় ভূষণ রায় জানান, ওই ছাত্রীর পিতা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ৫ জনকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা (নং ৪৩) দায়ের করেন। ঘটনার সাথে জড়িত দু’জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।