হবিগঞ্জ ১২:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক পেলেন মাধবপুরের ওসি রকিবুল ইসলাম Logo বাহুবলে মুদ্দত আলী ও তার পরিবারের উপর হয়রানীমূলক হত্যা মামলা ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে স্থানীয়দের মানববন্ধন Logo চুনারুঘাটে গাজীউর রহমান লন্ডনীর উদ্যোগে ৩শ’ চক্ষু রোগীকে ফ্রি চিকিৎসা ও ঔষধ বিতরণ  Logo মাধবপুরে কৃতী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও মেধাবৃত্তি প্রদান Logo চুনারুঘাটে উবাহাটা ইউনিয়নবাসীর সাথে ব্যারিস্টার সুমন এমপি’র মতবিনিময় Logo চুনারুঘাটের রাঁণীগাও ইউনিয়নের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে মত বিনিময় করেছেন ব্যারিস্টার সুমন এমপি Logo বাহুবল প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি গঠন: সভাপতি কুটি, সম্পাদক মাসুম Logo রেড সেল ইন বাংলাদেশের ৩য় প্রতিষ্টা বার্ষিকী অনুষ্ঠিত Logo চুনারুঘাটে দক্ষিণা চরণ স্মৃতি টি-২০ ক্রিকেট লক্ষ টাকার ফাইনাল টুর্নামেন্ট Logo চুনারুঘাট থানা পুলিশের অভিযানে মাদক মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

অভিনব কৌশলে চা-পাতার বস্তায় ভারতীয় ৭৫ কেজি গাঁজার চালান, গ্রেফতার ২

হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে অভিনব কৌশলে ভারতীয় ৭৫ কেজি গাঁজার সিএনজিযোগে ঢাকায় পাচারকালে পুলিশের কাছে আটকা পড়েছে দুই কারবারি। আটককৃতরা উপজেলার গাজিপুর ইউনিয়নের গনকিরপাড় এলাকার মৃত আ. রাজ্জাকের পুত্র মো. আঃ খালেক (৪০) ও একই এলাকার সিএনজি চালক মৃত হাছান আলীর পুত্র মো. কাউছার মিয়া (২৬)।

এ সময় তাদের কাছে থাকা বস্তা তল্লাশি করে বিশেষ কায়দায় চা পাতার বস্তায় থাকা পলিথিনে কস্টেপ দিয়ে মোড়ানো ৭৫ কেজি ভারতীয় গাঁজা উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দিয়ে আজ শুক্রবার (২৭ অক্টোবর) দুপুরে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

জানা যায়, চুনারুঘাটের সীমান্তবর্তী এলাকা দিয়ে গাঁজা আনছে একটি চক্র। পরে চা পাতা ব্যবসার আড়ালে বাহক দিয়ে নানা কৌশলে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পৌঁছে দেয়া হচ্ছে।

ঝুঁকি বিবেচনায় গাঁজা পরিবহনের জন্য ২০-৩০ হাজার টাকা নিয়ে থাকে চক্রের সদস্যরা। আঃ খালেক (৪০) ও মোঃ কাউছার মিয়া (২৬) নামে এ চক্রের দুজন বাহককে চুনারুঘাট উপজেলার ঢাকা- সিলেট পুরাতন মহাসড়কে অভিযান চালিয়ে সিএনজি চালক সহ দুজনকে গ্রেপ্তার করা গেলেও মূলহোতা এখনো অধরা।

তদন্তের স্বার্থে তার নাম প্রকাশ করা যাচ্ছে না, তবে তাকে আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আজ শুক্রবার (২৭ অক্টোবর ) দুপুরে এসব তথ্য জানান থানার ওসি রাশেদুল হক। তিনি জানান, চক্রটি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিতে নিত্য-নতুন কৌশল অবলম্বন করছে।

কখনো পিক-আপ বা ট্রাকে করে আবার কখনো সিএনজি করে গাঁজা নিয়ে আসছিল তারা। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার থানার এএসআই আলী আকবরসহ একদল পুলিশ হাতুন্ডা কলেজ রোডে অভিযান চালিয়ে দুজনকে আটক করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, খালেক ও কাউছার চা পাতার বস্তায় করে কুরিয়ার মাধ্যমে গাঁজার চালান ঢাকাসহ দেশের অন্যান্য এলাকায় পাঠানো হয়।

তাদের কাছ থেকে সিন্ডিকেটের সদস্যরা গাজা কিনে নেয়। ৭৫ কেজি গাঁজার চালানটি ঢাকার এক মাদক ব্যবসায়ীর কাছে কুরিয়ার করার কথা ছিল। মূলহোতাসহ এ চক্রের অন্য সদস্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

জানা যায়, চুনারুঘাট সীমান্তে অভিনব কায়দায় চা-পাতা ব্যবসার আড়ালেও পাচার হয় গাঁজা। মাদক ব্যবসায়ী কিছু দিন ধরে অতি গোপনে অভিনব কায়দায় চা-পাতার বস্তায় অন্তরালে চা-পাতার সহিত অবৈধ মাদকদ্রব্য গাঁজা নিয়ে এসে স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ীদের নিকট বিক্রয় করে আসছে। এমনকি পার্সেলও করা হয়।

এ ব্যাপারে চুনারুঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাশেদুল হক বলেন- মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান সব সময়ই অব্যাহত রয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আমরা কাজ করে যাচ্ছি। মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার করতে পুলিশকে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করেন। আমরা চুনারুঘাট উপজেলাকে মাদকমুক্ত ঘোষণা দিব।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

খন্দকার আলাউদ্দিন

হ্যালো, আমি খন্দকার আলাউদ্দিন, আপনাদের চারিপাশের সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করুন।
জনপ্রিয় সংবাদ

রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক পেলেন মাধবপুরের ওসি রকিবুল ইসলাম

অভিনব কৌশলে চা-পাতার বস্তায় ভারতীয় ৭৫ কেজি গাঁজার চালান, গ্রেফতার ২

আপডেট সময় ১১:১৩:২৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ অক্টোবর ২০২৩

হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে অভিনব কৌশলে ভারতীয় ৭৫ কেজি গাঁজার সিএনজিযোগে ঢাকায় পাচারকালে পুলিশের কাছে আটকা পড়েছে দুই কারবারি। আটককৃতরা উপজেলার গাজিপুর ইউনিয়নের গনকিরপাড় এলাকার মৃত আ. রাজ্জাকের পুত্র মো. আঃ খালেক (৪০) ও একই এলাকার সিএনজি চালক মৃত হাছান আলীর পুত্র মো. কাউছার মিয়া (২৬)।

এ সময় তাদের কাছে থাকা বস্তা তল্লাশি করে বিশেষ কায়দায় চা পাতার বস্তায় থাকা পলিথিনে কস্টেপ দিয়ে মোড়ানো ৭৫ কেজি ভারতীয় গাঁজা উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দিয়ে আজ শুক্রবার (২৭ অক্টোবর) দুপুরে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

জানা যায়, চুনারুঘাটের সীমান্তবর্তী এলাকা দিয়ে গাঁজা আনছে একটি চক্র। পরে চা পাতা ব্যবসার আড়ালে বাহক দিয়ে নানা কৌশলে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পৌঁছে দেয়া হচ্ছে।

ঝুঁকি বিবেচনায় গাঁজা পরিবহনের জন্য ২০-৩০ হাজার টাকা নিয়ে থাকে চক্রের সদস্যরা। আঃ খালেক (৪০) ও মোঃ কাউছার মিয়া (২৬) নামে এ চক্রের দুজন বাহককে চুনারুঘাট উপজেলার ঢাকা- সিলেট পুরাতন মহাসড়কে অভিযান চালিয়ে সিএনজি চালক সহ দুজনকে গ্রেপ্তার করা গেলেও মূলহোতা এখনো অধরা।

তদন্তের স্বার্থে তার নাম প্রকাশ করা যাচ্ছে না, তবে তাকে আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আজ শুক্রবার (২৭ অক্টোবর ) দুপুরে এসব তথ্য জানান থানার ওসি রাশেদুল হক। তিনি জানান, চক্রটি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিতে নিত্য-নতুন কৌশল অবলম্বন করছে।

কখনো পিক-আপ বা ট্রাকে করে আবার কখনো সিএনজি করে গাঁজা নিয়ে আসছিল তারা। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার থানার এএসআই আলী আকবরসহ একদল পুলিশ হাতুন্ডা কলেজ রোডে অভিযান চালিয়ে দুজনকে আটক করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, খালেক ও কাউছার চা পাতার বস্তায় করে কুরিয়ার মাধ্যমে গাঁজার চালান ঢাকাসহ দেশের অন্যান্য এলাকায় পাঠানো হয়।

তাদের কাছ থেকে সিন্ডিকেটের সদস্যরা গাজা কিনে নেয়। ৭৫ কেজি গাঁজার চালানটি ঢাকার এক মাদক ব্যবসায়ীর কাছে কুরিয়ার করার কথা ছিল। মূলহোতাসহ এ চক্রের অন্য সদস্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

জানা যায়, চুনারুঘাট সীমান্তে অভিনব কায়দায় চা-পাতা ব্যবসার আড়ালেও পাচার হয় গাঁজা। মাদক ব্যবসায়ী কিছু দিন ধরে অতি গোপনে অভিনব কায়দায় চা-পাতার বস্তায় অন্তরালে চা-পাতার সহিত অবৈধ মাদকদ্রব্য গাঁজা নিয়ে এসে স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ীদের নিকট বিক্রয় করে আসছে। এমনকি পার্সেলও করা হয়।

এ ব্যাপারে চুনারুঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাশেদুল হক বলেন- মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান সব সময়ই অব্যাহত রয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আমরা কাজ করে যাচ্ছি। মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার করতে পুলিশকে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করেন। আমরা চুনারুঘাট উপজেলাকে মাদকমুক্ত ঘোষণা দিব।