হবিগঞ্জ ১০:৩৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo ২২ দিন অন্ধকারে থাকার পর ব্যারিস্টার সুমনের সহযোগিতায় বিদ্যুৎ সংযোগ পেল ৩৪ টি পরিবার Logo মাধবপুরে আগুনে পুড়ে ছাই হলো মিলনের বেঁচে থাকার অবলম্বন Logo চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাচনে ১৭ প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল Logo সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান সহ-ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠন Logo বিদ্যুৎপৃষ্ঠে নিহতের পরিবারের পাশে ব্যারিস্টার সুমন-এমপি Logo টেকনাফের ব্যাবসায়ী ৫শ’ পিছ ইয়াবাসহ চুনারুঘাটে গ্রেপ্তার Logo চুনারুঘাটে তীব্র দাবদাহে সুপেয় পানি ও খাবার স্যালাইন বিতরণ Logo শেখ হাসিনার আধুনিক চিন্তা ধারায় বদলে গেল কৃষিখাত, ব্যারিস্টার সুমন Logo কথায় কথায় বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক তাদের কাম কি? মানুষের টাকা মেরে দেয়া, ব্যারিস্টার সুমন Logo বাহুবলে অবৈধভাবে মাটি উত্তোলন, জরিমানা ৫০ হাজার টাকা

শায়েস্তাগঞ্জে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে জামানত হারাচ্ছেন ৪ চেয়ারম্যান প্রার্থী

শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার নুরপুর ও ব্রাক্ষণডোরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৪ প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হচ্ছে।  গত বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) অনুষ্ঠিত এ দুটি ইউনিয়নে মোট ৪ চেয়ারম্যান প্রার্থী জামানত রক্ষা করার মতো পর্যাপ্ত সংখ্যক ভোট পাননি। নির্বাচন কমিশনের বিধানমতে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের মোট কাস্টিং ভোটের আট ভাগের এক ভাগ ভোট না পেলে জামানত বাজেয়াপ্ত করা হয়।

জামানত বাজেয়াপ্ত প্রার্থীরা হলেন- নুরপুর ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী এম এম হেলাল (লাঙ্গল), ব্রাক্ষণডোরা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী জসিম উদ্দিন আহমেদ (আনারস), স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. হুমায়ুন কবীর (অটোরিকশা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. টিপু সুলতান(ঘোড়া)। অনুষ্ঠিত নির্বাচনে নুরপুর ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির প্রার্থী এম এম হেলাল পান ৪৩২ ভোট। জামানত রক্ষায় প্রয়োজন ছিল ১ হাজার ২০৮ ভোট। ব্রাক্ষণডোরা ইউনিয়নে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদেরকে তাদের জামানত রক্ষায় ১ হাজার ৭০ ভোট পাওয়ার প্রয়োজনীয়তা থাকলেও জসিম উদ্দিন আহমেদ পেয়েছেন ৯৮৬ ভোট, মো. হুমায়ুন কবীর পেয়েছেন ৩৭৩ ভোট ও মো. টিপু সুলতান পেয়েছেন ২৫২ ভোট।

এ বিষয়ে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেন, কোনো প্রার্থী নির্বাচনে প্রদত্ত ভোটের এক অষ্টমাংশের চেয়ে কম ভোট পেলে তার জামানতের টাকা বাজেয়াপ্ত করা হবে।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

খন্দকার আলাউদ্দিন

হ্যালো, আমি খন্দকার আলাউদ্দিন, আপনাদের চারিপাশের সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করুন।
জনপ্রিয় সংবাদ

২২ দিন অন্ধকারে থাকার পর ব্যারিস্টার সুমনের সহযোগিতায় বিদ্যুৎ সংযোগ পেল ৩৪ টি পরিবার

শায়েস্তাগঞ্জে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে জামানত হারাচ্ছেন ৪ চেয়ারম্যান প্রার্থী

আপডেট সময় ১১:২৫:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২ জানুয়ারী ২০২৩

শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার নুরপুর ও ব্রাক্ষণডোরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৪ প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হচ্ছে।  গত বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) অনুষ্ঠিত এ দুটি ইউনিয়নে মোট ৪ চেয়ারম্যান প্রার্থী জামানত রক্ষা করার মতো পর্যাপ্ত সংখ্যক ভোট পাননি। নির্বাচন কমিশনের বিধানমতে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের মোট কাস্টিং ভোটের আট ভাগের এক ভাগ ভোট না পেলে জামানত বাজেয়াপ্ত করা হয়।

জামানত বাজেয়াপ্ত প্রার্থীরা হলেন- নুরপুর ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী এম এম হেলাল (লাঙ্গল), ব্রাক্ষণডোরা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী জসিম উদ্দিন আহমেদ (আনারস), স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. হুমায়ুন কবীর (অটোরিকশা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. টিপু সুলতান(ঘোড়া)। অনুষ্ঠিত নির্বাচনে নুরপুর ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির প্রার্থী এম এম হেলাল পান ৪৩২ ভোট। জামানত রক্ষায় প্রয়োজন ছিল ১ হাজার ২০৮ ভোট। ব্রাক্ষণডোরা ইউনিয়নে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদেরকে তাদের জামানত রক্ষায় ১ হাজার ৭০ ভোট পাওয়ার প্রয়োজনীয়তা থাকলেও জসিম উদ্দিন আহমেদ পেয়েছেন ৯৮৬ ভোট, মো. হুমায়ুন কবীর পেয়েছেন ৩৭৩ ভোট ও মো. টিপু সুলতান পেয়েছেন ২৫২ ভোট।

এ বিষয়ে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেন, কোনো প্রার্থী নির্বাচনে প্রদত্ত ভোটের এক অষ্টমাংশের চেয়ে কম ভোট পেলে তার জামানতের টাকা বাজেয়াপ্ত করা হবে।